ঘাস কাটতে গিয়ে ,বিপত্তি হল এক স্কুল ছাত্রীর।

আজ সকালে মাঠে গবাদিপশুর জন্য ঘাস কাটতে গিয়ে বিপদের সম্মুখীন হলো এক ছাত্রী। আহত ছাত্রীর নাম সমু মাল(১২)। সে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী। আচমকা হোঁচট খেয়ে পড়ে গেলে ফুঁড়ে ঢুকে গেল কাস্তে।ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের ধমকাপাড়া পঞ্চায়েতের ঘনশ্যামপুর গ্রামে। গুরুতর জখম অবস্থায় সমুকে রামপুরহাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই তার অস্ত্রোপচার হয়। এখন সে পুরোপুরি সুস্থ। সমুর মা শাওনিদেবীর কথায়, ওনার মেয়ে সমু মাল গ্রামের এক মাঠে গবাদিপশুর জন্য ঘাস কাটতে যায় কাস্তে নিয়ে। তারপর সে আচমকা কাস্তে নিয়ে হোঁচট খেয়ে পড়ে যায় ও তার গাল ফুঁড়ে ঢুকে যায় কাস্তে।তড়িঘড়ি জখম অবস্থায় সমুকে রামপুরহাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারপর সেখানেই তার অস্ত্রোপচার হয়। যদিও সে এখনো পুরোপুরি সুস্থ। রামপুরহাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের এক চিকিৎসক বলেন,”সমু এখন সুস্থ। সমুর একটা অস্ত্রপচার হয়েছে। তবে সমুর ফেসিয়াল নার্ভের কতটা ক্ষতি হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি তার জন্য ,কিছু পরীক্ষা করতে হবে। তবে সেই সব পরীক্ষা এই হাসপাতালে এখনও চালু হয়নি বলে জানা গিয়েছে |তথ্য ও চিত্র – সুকান্ত রায়