বাঁকুড়া: বাঁকুড়ার পাঁচমুড়া কলেজের কতৃপক্ষের ভূলে ২৬জন ছাত্র ছাত্রীদের পরিক্ষা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন

পাঁচমুড়া কলেজে ২৬ জন ছাত্র ছাত্রী দ্বিতীয় সেমিস্টারেরর পরীক্ষা দিতে পারছে না কলেজ কতৃপক্ষের উদাসীনতার ফলে । তাই এদিন অভিযোগকারী ছাত্র ছাত্রীরা কলেজের মেন গেটসহ অফিস রুমের সদর দরজা আটকে বিক্ষোভ দেখায় । মূলত তাদের সমস্যা সমাধানের জন্য ।অভিযোগকারী এক ছাত্রী জানায়, তাদের সেকেন্ড সেমিস্টারের এডমিট না আসায় আমরা অফিসে যোগাযোগ করি তখন তাদেরকে কলেজ কতৃপক্ষ জানায় যে , প্রথম সেমিস্টারের ইন্টারনেলে কোন এক বিষয়ে অনুপস্থিত থাকার কারনে আমাদের এডমিট আসেনি । একথা মানতে নারাজ অভিযোগ কারী ছাত্র ছাত্রীরা । তারা উপযুক্ত তথ্য দেখায় যে তারা সব বিষয়ে পরীক্ষায় উপস্থিত ছিলো বলে তখন কলেজ কতৃপক্ষ অফিসিয়াল বা পরীক্ষার রুমে কর্তব্যরত স্যারেদের ভুল বলে স্বীকার করে নিয়ে ছাত্র ছাত্রীদের ২০০টাকা করে ফাইন দিয়ে পরীক্ষায় বসতে বলে এবং সেকেন্ড সেমিস্টারের নাম তুলে দেওয়ার আশ্বাস জানায়।ছাত্র ছাত্রীরা সেই মত ফাইন দিয়ে প্রথম সেমিস্টারের ইন্টারনেলের বিষয় গুলিতে পরীক্ষা দেয় এবং এ পরীক্ষার মূল্যায়ন পত্র নাকি আবার হারিয়ে গেছে বলে জানায় ছাত্র ছাত্রীদের কলেজ কতৃপক্ষ। পরে আবারও পরীক্ষা হয় প্রথম সেমিস্টারের ইন্টারনেলের অনুপস্থিত দেখানো বিষয় গুলিতে এবং কয়েকদিন পর কলেজ জানায় তাদের আর কিছু করার নেই । পরীক্ষার দুদিন আগে বিশ্ববিদ্যালয়ে সঠিক তথ্য জানার জন্য অভিযোগকারী ছাত্র ছাত্রীরা দারস্থ হয়,তখন বিশ্ববিদ্যালয় তাদের জানায় কলেজ কোনো প্রপার ডকুমেন্ট আমাদের পাঠায়নি।এদিকে আগামি কাল পরীক্ষা।পরীক্ষার্থিরা জানায় কলেজ আমাদেরকে এই পরীক্ষা আবার ফোর্থ সেমিস্টারের আগে বসার সুযোগ করে দেবে।কিন্তু ছাত্রীরা জানায় এটাকি করে সম্ভব ।

ছবি ও তথ্য সঞ্জীব মল্লিক , বাঁকুড়া ।