মুর্শিদাবাদ নদীয়া আবারও এক বছর গম চাষ বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে, এর আগে এক বছর মুর্শিদাবাদ ও নদীয়া সমগ্র এলাকা গম চাষ বন্ধের নির্দেশ নেওয়া হয়েছিল এবং বাকি জেলায় সীমান্ত এলাকায় ৫ কিলোমিটারের চাষ বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এবারও আরও এক বছর চাষ বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কারন এখন পর্যন্ত উত্তর বঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ও বিধান চন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালায় এই নিয়ে কাজ করছি। এখনও পর্যন্ত গমের রোগের সমাধান করা যায় নি। তবে অনুমান খুব তারাতারি সমাধান পাওয়া যাবে। গমের যে রোগ দেখতে পাওয়া গেছে তাথে হাওয়ার মধ্যমে রোগ চরাচ্ছে। সুতরাং এই রোগ এক যায়গায় এটি বাঁধা রাখা যাবে না। সেই কারনেই সমগ্য জেলায় গম চাষ বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আজ বহরমপুরে কৃষি ভবনে wheat holiday নিয়ে জেলার কৃষি আধিকারিকদের নিয়ে আলচনায় বসেন কৃষি মন্ত্রী আশিস বন্ধ্যোপাধ্যায়। কি ভাবে এই এক বছর কাজ করা সম্ভব হবে সেই নিয়েই আলোচনা করা হয়। এছাড়াও চার রাজ্য থেকে আলু বীজ কেনার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রক। তামিলনাড়ু,জম্মু ও কাশ্মীর, হিমাচল প্রদেশ এবং উত্তরাখন্ডে আলু গাছে একপ্রকার কৃমি জাতীয় রোগের প্রকোপ দেখা দেওয়ায় ওই রাজ্যগুলি থেকে আলু বীজ না আনার ওপর এক নির্দেশিকা জারি করেছে কৃষি মন্ত্রক, পাশাপাশি ওই চার রাজ্য থেকে দেশের অন্যত্র আলু বীজ পাঠানো যাবেনা, এবিষয়ে শনিবার বহরমপুরে জেলা কৃষি দপ্তরে এক সাংবাদিক বৈঠক করেন কৃষি মন্ত্রী আশিস ব্যানার্জী। এদিন আলু বীজ কেনায় সরকারি নিষেধাজ্ঞা বিষয়ে নানান আলোচনাও করেন মন্ত্রী। ছবি ও তথ্য – বিনয় রায়  ৢ