পুজোর জন্য বাড়ি পরিস্কার করতে গিয়ে পুরোনো বাক্স থেকে বের হল চিতা বাঘের চামড়া, সেই চামড়া বনদফতরের হাতে তুলে নিয়ে নজির করল জলপাইগুড়ি শহরের তেলি পাড়ার ট্রেম্পল স্ট্রিটের বাসিন্দা অনিমেশ দেব, আজ রাতেই ওই চিতা বাঘের চামড়া নিয়ে গেলেন বন কর্মীরা, অনুমান চিতা বাঘের চামড়াটির লল্বায় প্রায় ৯ ফুট।
প্রায় ৬০ বছর আগে জলপাইগুড়ি অনিমেশ বাবুর বাবা মৃত আদিত্য চন্দ্র দেব চিতা বাঘটির চামড়া বাড়িতে সাজিয়ে রাখবেন বলে অনুমান দেব পরিবারের, তারপর থেকে বাড়ির পুরোন বাক্সতেই মজুত করে রাখাছিল, এদিন পুজোর জন্য বাড়ি পরিস্কার করতে গিয়ে পুরোন বাক্স থেকে বের হয়ে আসে চিতা বাঘের চামড়াটি, সেটি কাপড় দিয়ে মুড়িয়ে রাখা ছিল, অনিমেশ দেব বলেন, আমার বাবা কাঠের ব্যবসা করত, আজ থেকে ৬০ বছর আগে বাবা ডুয়ার্সে কাঠের ব্যবসা করতে গিয়ে হয়ত চিতাবাঘটির চামড়াটি এনেছিলেন তারপর থেকে বাড়িতে ছিলো। আজকে চিতা বাঘের চামড়াটি তুলে দিতে পেরে আমার পরিবার খুশি।
বনদফতরের ওয়াইল্ড লাইফ ওয়ার্ডেন সীমা চৌধুরী বলেন, চিতাবাঘের চামড়াটি উদ্ধার করা হয়েছে। বনফতরের হাতে তুলে দেওয়া হবে, তার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।
পুরনো বাক্স থেকে পাওয়া চিতাবাঘের চামড়া বনদপ্তরের হাতে তুলে দিল জলপাইগুড়ির এক পরিবার।