নতুন বছরের প্রথম দিনে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ শহর দেখলো এক অবাক করা হাট। শুক্রবারে নয়, পদ্মাপাড়েও নয়, রায়গঞ্জ শহরের সুপার মার্কেটের সামনে রবিবার ১ লা বৈশাখ বসেছিল জৈবহাট। জৈব হাটে তাদের জৈব পদ্ধতিতে উৎপাদিত শাক, সব্জী নিয়ে হাজির হয়েছিলেন রায়গঞ্জ লাগোয়া বিভিন্ন গ্রামের কৃষকরা। উদোক্তারা হতবাক, হাট বসার আগেই হাটের অর্দ্ধেক এর বেশী মাল বিক্রি হয়ে যাওয়ায়। সাধারন মানুষের উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মতো। রাসায়নিক সার না দেওয়া লাল শাক, লাউ সবই প্রায় হুড়োহুড়ি করে শেষ করে দিলেন ক্রেতারা। দামও সাধারন বাজারের মতো। ছিল মাটির তৈরী বিভিন্ন জলের বোতল। ক্রেতারা বললেল তারা খুশি। ছিলেন মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের সম্পাদক অতুনু বন্ধু লাহিড়ী। অতনু বাবু জানালেন তিনি ক্রেতা হয়ে এসেছেন, তবে এই ধরনের জৈব উৎপাদনের জন্য জেলার সব বাজারে আউটলেট করার উদ্যোগ নেওয়ার চেষ্টা করবেন বলেই জানিয়েছেন তিনি। উদ্দোক্তা টীপু মন্ডল বলেন আমরা এভাবে সাড়া পাবো ভাবতেই পারিনি। ছবি ও তথ্য — রেখা রায়,উত্তর দিনাজপুর