বহুদিন ধরে নিখোঁজ থাকার পর শুক্রবার শিলিগুড়ির ফুলবাড়ি সংলগ্ন এলাকা থেকে উদ্ধার হয় নিখোঁজ থাকা কলেজ ছাত্রীর মৃতদেহ। ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। মৃত ওই কলেজ ছাত্রীর নাম আঞ্জুমা খাতুন। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। এরপর মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠায়। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। চলতি বছর ১০ অক্টোবর থেকে নিখোঁজ ছিল আঞ্জুমা। সেফুলবাড়ি ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের কালাঙ্গিনি গ্রামের বাসিন্দা ও সূর্যসেন কলেজের দ্বিতীয় বার্ষে পাঠ্যরত। তবে আঞ্জুমা পড়াশুনো করার পাশাপাশি প্রাইভেট সংস্থায় সিকিউরিটি গার্ডের কাজ করত। প্রতিদিনের মতো গত ১০ই অক্টোবর বৃহস্পতিবার আঞ্জুমা কাজে গেলেও রাতে বাড়ি ফিরে না। তবে যেদিন থেকে সে নিখোঁজ হয়েছে তাকে শেষবারের মতো ফুলবাড়িতে দেখেছিল তার পরিবার। তারপর থেকে তার আর খোঁজ মেলে নি। আজ তার পচাগলা মৃতদেহ উদ্ধার হয়। অস্বাভাবিকভাবে আঞ্জুমার মৃত্যুকে মেনে নিতে পারছে না তার পরিবার।এন জি পি থানার তরফে জানান হয়েছে, “আমাদের তরফে থেকে কোনও খামতি রাখি নি। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না আসা অবদি কিছু বলা যাচ্ছে না”।