সুতি 2 নম্বর ব্লকের সরলা গ্রামের মডান পাড়াই 16 তারিখ বিকেল চারটের সময় বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে যুধিষ্ঠির মন্ডল নামে এক কৃষক পরবর্তীতে তাকে জঙ্গিপুর মহাকুমা হসপিটাল নিয়ে গেলে তার পরিস্থিতির অবনতি ঘটায় সাথে সাথেই থাকে বহরমপুর মেডিকেল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয় গতকাল বহরমপুর মেডিকেল কলেজ এই মৃত্যু হয় যদি স্থির মন্ডলের বাড়ির আত্মীয়দের দাবি দুর্গাপুজোর আগেই অবিরাম বৃষ্টি এবং ঝাড়খণ্ডের জলে প্লাবিত হয়ে যায় এই এলাকার সমস্ত জমি এবং বহুৎ গ্রাম সরলার মাঠেই নিজস্ব জমি এবং 8 বিগ ভাগের জমিতে চাষ করতেন তিনি বন্ধন ব্যাংক থেকে 36000 এবং সোনার কানের দুল হাতের চুড়ি দিয়ে মহাজনের কাছ থেকে প্রায় 40 হাজার টাকার চাষাবাদের জন্য ঋণ করেছিলেন যুধিষ্ঠির বাবু এই ঋণের দায় কি করে মেটাবেন সেই চিন্তাতেই ভুগছিলেন তিনি চার বিঘা জমিতে পাট চাষ এবং পাঁচ বিঘা তে ধান চাষ প্রপার্টি ভেসে চলে যায় বন্যার জলে ডুবে যায় না পারবে না পারবে মহাজন টাকা মেটাতে সেই চিন্তাতেই আত্মঘাতী হন তিনি এমনটাই দাবি পরিবারে পরিবারে শোকের ছায়া পরিবারের রুজি রোজগার সারাবছর কি করে চলবে পরিবারের লোকের মুখে কি করে দিতে পারবেন সেই চিন্তাতেই ভুগছিলেন এখন অব্দি সরকারি কোন সাহায্য মেলেনি পরিবারের আত্মীয়দের। ছবি ও তথ্য – সুমন্ত দাস