“বাসের রেষারেষিতে বলি যুবক ”

বাসের রেষারেষিতে প্রাণ গেলো এক বাইক আরোহী তরতাজা যুবকের। ঘটনাটি মালদার মানিকচকের নাজিরপুরের নিমতলিএলাকায়। মৃত যুবকের নাম শেখ রয়াল ২২। বাড়ি মানিকচকের মথুরাপুরের পুরানিগ্রামে ।প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে মালদা-চাঁচল গামী দুটি বেসরকারি বাস নিজেদের মধ্যে রেষারেষি করছিল।ঠিক সেই সময়ই নাজিরপুর থেকে ফেরার পথে বাসের সামনে পড়ে যায় বাইক আরোহী রয়াল। বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মুখোমুখি ধাক্কা মারে বাইকটিকে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে ঘটনাস্থলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে রয়াল। বাইকের আরেকজন আরোহী র়য়ালের বন্ধু দুর্ঘটনার সময় বাইক থেকে ছিটকে পড়ে প্রাণে বাঁচে সে ।জানা যায় রয়েল মানিকচক কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ।আজ মালদা থেকে একটি সেকেন্ড হ্যান্ড মোটর বাইক কিনে বাড়ি ফিরছিল সে। বাইকে তেল ভরাতে নাজিরপুর পেট্রলপাম্পে
যাই সে । পাম্প থেকে ফেরার পথে এই দুর্ঘটনা। স্থানীয় মানুষদের অভিযোগ বারবার একই স্থানে দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে ।প্রশাসনের তরফ থেকে শুধুমাত্র রাস্তায় একটি ব্যারিকেডের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু তাতেও দমেনি বেসরকারি বাসের রেষারেষি। এরকম দুর্ঘটনা রুখতে প্রশাসনিক কড়া পদক্ষেপের দাবি জানায় স্থানীয় মানুষজন। দুর্ঘটনার পর চম্পট দেয় বেসরকারি বাসের ড্রাইভার ।তবে স্থানীয় মানুষজন আটক করে ঘাতক বাসটিকে।বাসটিকে আটক করেছে মানিকচক থানা।মৃতদেহ ও বইটিকে উদ্ধারের জন্য পরে একটি জেসিবি মেশিন ডাকা হয়,সেই মেশিনের মাধ্যমে মৃতদেহ উদ্ধার করা হয় ।মালদা চাঁচল রাজ্য সড়কও কিছু ক্ষনের জন্য অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় মানুষজন।ছবি ও তথ্য:সাগর রজক ও কাজল ঘোষ।