অপহরনের পর ২৪ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও এখনও খোঁজ মেলেনি উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের  ব্লক কংগ্রেস সভাপতি তথা ২১ নম্বর জেলা পরিষদের আসনের কংগ্রেসের প্রার্থী লিয়াকৎ আলির।  পুলিশ ও প্রশাসনের কাছে বারংবার অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি বলে অভিযোগ কংগ্রেসের। তাই ঘটনার প্রতিবাদে আন্দোলনে নামল জেলা কংগ্রেস।শুক্রবার বিকালে রায়গঞ্জের গান্ধী মূর্তি পাদদেশ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করে জেলা কংগ্রেস। বিধায়ক তথা জেলা কংগ্রেস সভাপতি মোহিত সেনগুপ্ত, কংগ্রেস নেতা পবিত্র চন্দ সহ এই মিছিলে পা মেলান শহর ও গ্রামের কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকেরা। তৃণমূলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ এনে এবং পুলিশের একাংশ এই অপহরণের কাজের সাথে যুক্ত রয়েছে। পুলিশের মদতে তৃণমূলের গুন্ডাবাহিনী আমাদের প্রার্থীকে অপহরণ করেছে। গণতন্ত্রকে হত্যা করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন জেলা সভাপতি মোহিত সেনগুপ্ত।বৃহস্পতিবার অভিযোগ উঠেছিল   তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে  অভিযোগ, ভোররাত থেকে কংগ্রেস প্রার্থী লিয়াকত আলির বাড়ি ঘিরে রেখেছিল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। পুলিশ সুপারকে বারবার জানানো হলেও তিনি কোনও পদক্ষেপ নেননি। তাই ফোন করা হয় জেলাশাসককে। তাঁর হস্তক্ষেপে লিয়াকতের বাড়ি থেকে চলে যায় ওই দুষ্কৃতীরা। পরে নিজের গাড়ি করে গ্রামের বাড়ি যাওয়ার জন্য রওনা হন লিয়াকত আলি। অভিযোগ, মাঝরাস্তায় তাঁকে ঘিরে ধরে একদল দুষ্কৃতী। তারপর তাঁকে সেখান থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। বিষয়টি জানিয়ে রায়গঞ্জ থানায় অপহরণের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।ছবি ও তথ্য – রেখা রায়,উত্তর দিনাজপুর