অপশক্তির বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই ”, বললেন ৪৭ নং মালতীপুর বিধানসভার AIMIM-র প্রার্থী

“অপশক্তির বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই ”, বললেন ৪৭ নং মালতীপুর বিধানসভার AIMIM-র প্রার্থী

আজ, মঙ্গলবার চাঁচলের মহকুমা শাসকের দফতরে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন ৪৭ নং মালতীপুর বিধানসভার AIMIM-র প্রার্থী মতিউর রহমান।মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার আগে সাংবাদিকদের  মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, “এইবার ভোটে লড়াই হবে অপশক্তির বিরুদ্ধে।যে অপশক্তি কাটমানি খায়, চাকরি দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা লুটে নেয়। সেই অপশক্তির বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই। ব্যক্তিগতভাবে কারো নাম নিতে চাই না । মালতীপুর বিধানসভার AIMIM -র প্রার্থী মতিউর রহমান আরও বলেন, পশ্চিমবঙ্গে ৭ টি আসনে প্রার্থী দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। মালদহ জেলার ৪৭ মালতীপুর বিধানসভা থেকে আমি প্রার্থী।রতুয়া থেকে প্রার্থী দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। চাঁচল ও হরিশ্চন্দ্রপুরে আপাতত প্রার্থী দেওয়ার সম্ভাবনা নেই। প্রসঙ্গক্রমে তিনি আরো বলেন, ” আমরা কারো ভোট কাটতে আসিনি। ভোট কারো ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়। গণতান্ত্রিক দেশে ভোটে সকলের সমান অধিকার রয়েছে। এখানে আমাদের ৮-১০ বছর ধরে সংগঠন করছি।বন্যায় , লকডাউনে আমরা মানুষের পাশে থেকেছি। দেশের সেবা করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। দেশ সবার আগে। তাই কে কি বলল, তা নিয়ে আমাদের কিছু  যায়় আসেনা।  আমরা পরোয়াও করিনা । আমরা নিজের কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। মানুষ আমাদের সঙ্গে রয়েছেন।আগামী ৮ তারিখ জালালপুরে সভা হবে।মিম সুপ্রিমো ওয়াইসি আসছেন।এই বিধানসভা এলাকার মানুষের স্বাস্থ্য , শিক্ষা , পানীয় জলের রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন চাই । শিক্ষার অবস্থা তলানিতে । রোজগার নেই।এলাকার ৮০ শতাংশ মানুষ বাইরে কাজ করতে যেতে বাধ্য হচ্ছেন।কর্ম সংস্থান নেই ।আম নিয়ে শিল্প হতে পারে ।এলাকায় আইন শৃঙ্খলা ভালোই রয়েছে । প্রশাসন দেশের জন্য কাজ করছেন ।শ্রম দিচ্ছেন। মালতীপুরে পৃথক থানা গঠনের দাবি আমরা জানাচ্ছি । একলাখি থেকে খানপুর ,চাঁচল হয়ে বারসই পর্যন্ত রেল পথ গড়ারও দাবি আমরা জানাচ্ছি । দল আমাকে মানুষের কাজের জন্য কাজ করার সুযোগ দিয়েছে । এলাকার মানুষের সেবায় নিজেকে নিবেদিত করতে চাই ।যেখানেই যাচ্ছি মানুষের সাড়া পাচ্ছি ।মানুষ উন্নয়ন চাইছেন । জনগণ আমদের সঙ্গে রয়েছেন ।আমরাই জয়ী হব ।কেউ আমাদের ঠেকাতে পারবেন না ।”( ছবি ও তথ্য : দেবাশিস ঘোষ , চাঁচল )